এয়ারটেল গ্রাহকরাও পাবেন বিকাশ সেবা

ডিসেম্বর ২৩, ২০১২ ঢাকা, বাংলাদেশ

এয়ারটেল গ্রাহকরা শীঘ্রই বিকাশ সেবা উপভোগ করতে পারবেন। এয়ারটেল বাংলাদেশ এবং বিকাশ লিমিটেড এর মধ্যে সম্প্রতি একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এই চুক্তির আওতায় এয়ারটেল গ্রাহকগণ বিকাশ মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস এর সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন। বিকাশের পক্ষে সিইও, কামাল কাদির এবং এয়ারটেল এর পক্ষে সিইও ও ব্যাবস্থাপনা পরিচালক, ক্রিস টবিট চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

এই চুক্তির ফলে এয়ারটেল গ্রাহকগণ বিকাশে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন এবং এয়ারটেল সংযোগের মাধ্যমে সহজে টাকা পাঠানো অথবা গ্রহণ, অর্থ জমা রাখা, পেমেন্ট ও অন্যান্য বিকাশ সুবিধাসমূহ গ্রহণ করতে পারবেন। উক্ত সেবার জন্য প্রচলিত সার্ভিস চার্জ প্রযোজ্য হবে। (ট্যাঁরিফ সংক্রান্ত তথ্যের জন্যে  ভিজিট করুনঃ (http://www.bkash.com/Tariff.php)।

এয়ারটেল বাংলাদেশ, দেশের দ্রুততম ক্রমবর্ধমান মোবাইল অপারেটর যা বর্তমানে ৭২% জনগোষ্ঠীকে তাদের নেটওয়ার্ক এর আওতায় এনেছে। এই মোবাইল অপারেটর তার গ্রাহকদের জন্য নতুন নতুন সার্ভিস সমূহ নিয়ে আসছে যেমন মোবাইল ব্যাংকিং, যার মাধ্যমে দেশের বৃহত্তর জনগোষ্ঠীকে ব্যাংকিং সুবিধা প্রদান করা সম্ভব। 

বিকাশ ব্র্যাক ব্যাংকের একটি অঙ্গপ্রতিষ্ঠান, যার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে  দেশের বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর কাছে অতি সহজে এবং স্বল্প খরচে অর্থনৈতিক সেবা পৌঁছে দেয়া। বর্তমানে ২৮,০০০ এরও বেশি এজেন্ট এর মাধ্যমে বিকাশ দেশের প্রধান মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে।
অনুষ্ঠানে অভ্যাগতদেরকে উদ্দেশ্য করে এয়ারটেল সিইও ক্রিস টবিট আর্থিক জগতে বিকাশ এর কার্যাবলীর ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন যে এয়ারটেল এর ব্যবসার পোর্টফোলিও তে বিকাশ মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস একটি গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা রাখবে।

বিকাশ সিইও কামাল কাদির এয়ারটেল এর সাথে এই চুক্তি কে তাদের প্রচেষ্টার আরো একটি মাইলস্টোন হিসেবে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন যে এখন দেশব্যাপী বিকাশের নেটওয়ার্ক বিস্তৃত এবং বিকাশের গ্রাহক সংখ্যা দশ লাখেরও বেশী।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন এয়ারটেল এর পক্ষ থেকে রুবাবা দউলা, চিফ সার্ভিস অফিসার এন্ড হেড অব এম-কমার্স, এ এস এম সাকিব সিকদার, হেড অব লিগাল, রাঘভেন্দ্র গুপ্তা, চিফ সাপ্লাই চেইন অফিসার এবং সৈয়দ মাহবুবুর রহমান, ব্র্যাক ব্যাংক এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও সিইও। এছাড়াও বিকাশ এর পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন মোহাম্মদ আজমল হুদা, হেড অব বিজনেস সলুশান্স এন্ড অপারেশন্স, মোবাশ্বের উর রহমান, হেড অব ইন্সটিটিউশনাল ডেভেলপমেন্ট, মঈনুদ্দিন মোহাম্মদ রাহগির, হেড অব ফাইন্যান্স এন্ড একাউন্টস, নিশাত রহমান, হেড অব কাস্টমার সার্ভিসেস, মাহমুদ আব্দুল্লাহ হারুন, ম্যানেজার, হিউমান রিসোরসেস এবং উভয় প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ।