বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রর বই পড়া কর্মসূচীতে ৩০,০০০ বই দিল বিকাশ

মে ১৬, ২০১৫

স্কুল ও কলেজ ছাত্রদের জন্য পরিচালিত বই পড়া কর্মসূচি ‘দেশ-ভিত্তিক উৎকর্ষ কার্যক্রম’ এ সহায়তা প্রদানের উদ্দেশ্যে  বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রকে ৩০,০০০ বই প্রদান করছে বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশ।

বিকাশ হতে প্রাপ্ত এই বই ৪০০টি স্কুলে প্রতি বছর ৩০,০০০ শিক্ষার্থীর কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে। এই বই পড়া কর্মসূচি  ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণীতে অধ্যয়নরত ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য পরিচালিত হবে।

এই কর্মসূচীর আওতায় আজ বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র,  বিকাশ এর সহযোগিতায় রাজধানীর মতিঝিলে অবস্থিত আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রদের জন্য এই কর্মসূচীর উদ্বোধন করে।

বেসামরিক বিমান ও পর্যটন বিষয়ক মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে এই কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন। উক্ত অনুষ্ঠানে বিকাশ এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কামাল কাদীর বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও প্রধান নির্বাহী অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদের হাতে অনুদানের বইগুলি তুলে দেন। অনুষ্ঠানে উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

রাশেদ খান মেনন তার বক্তব্যে বলেন, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র তার বই পড়া কার্যক্রম শুরুর মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে বই পড়ার আগ্রহ তৈরি করেছে। তিনি আশা প্রকাশ করেন বিশ্বসাহিত্যকেন্দ্রের এই বই পড়া কর্মসূচী অব্যাহত থাকার মাধ্যমে সমাজে একটি ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে।

কামাল কাদীর বলেন, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের গত ৩৬ বছরের ব্যাপক প্রচেষ্টার কারণেই এদেশে বই পড়ার অভ্যাস গড়ে উঠেছে। তিনি বলেন শিক্ষর্থীদের মাঝে বই পড়ার অভ্যাস ছড়িয়ে দিতে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের এই উদ্যোগের অংশীদার হতে পেরে বিকাশ গর্বিত।

বিকাশ কে বই প্রদানের জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ বলেন বই পড়ার মাধ্যমে একটি  জ্ঞান ভিত্তিক সমাজ গঠন ও আলোকিত মানুষ গড়ার প্রচেষ্টায় বিকাশ এর মত প্রতিষ্ঠান এর সহায়তা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

২০১৪ সালেও বিকাশ বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের বই পড়া কর্মসূচীতে ৩৪,০০০ বই প্রদান করেছিল।

২০১১ সালে কার্যক্রম শুরু করা বিকাশ ব্যাংকিং সেবা বহির্ভূত বাংলাদেশের  একটি বিশাল জনগোষ্ঠীকে সেবা প্রদানের লক্ষে নানা ধরনের মোবাইল সার্ভিস সেবা চালু করেছে। বিকাশ-  ব্র্যাক ব্যাংক, ইউএস ভিত্তিক মানি ইন মোশন, ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের অন্তর্গত প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল ফিনান্স কর্পোরেশন এবং বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের এর যৌথ মালিকানাধীন একটি প্রতিষ্ঠান।