করোনা দূর্গত ৫০০০ পরিবারকে বিকাশের ৩৫ লাখ টাকার খাদ্য সহায়তা

মে ১৮, ২০২০ ঢাকা

করোনা দূর্গত ৫০০০ পরিবারকে ৩৫ লক্ষ টাকার খাদ্য সহায়তা দিচ্ছে বিকাশ। সেনা কল্যান সংস্থার তত্ত্বাবধানে সেনা সদস্যরা দুস্থ পরিবারগুলোর মাঝে পৌঁছে দেবে এই খাদ্য সহায়তা।
আজ সেনাকল্যাণ সংস্থার প্রধান কার্যালয়ে প্রতিষ্ঠানটির ডিরেক্টর জেনারেল (ডিজি) বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মুন্সী মিজানুর রহমান এর হাতে সহায়তার এই খাদ্যসামগ্রী তুলে দেন বিকাশের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার কামাল কাদীর। এসময় উপস্থিত ছিলেন  সেনা কল্যান সংস্থার ডিরেক্টর জেনারেল (ডিজি)  বিগ্রেডিয়ার জেনারেল ওয়াহিদুল আলম চৌধুরী এবং বিকাশের চিফ এক্সটারনাল অ্যান্ড কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মেজর জেনারেল (অবঃ) শেখ মোঃ মনিরুল ইসলাম।  
৪ সদস্যের পরিবারের ১০দিন চলার মত এই খাদ্য সহায়তায় প্রতিটি পরিবার পাচ্ছেন ৫ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি লবন, ১ লিটার তেল, ১ কেজি চিনি, আধা কেজি সেমাই ও দুটি সাবান। 
করোনার কারণে উর্পাজনের পথ বন্ধ হয়ে যাওয়া পরিবারগুলোর কাছে এই খাদ্য সহায়তা কিছুটা হলেও স্বস্তি দেবে বিবেচনায় দেশের সবচেয়ে বড় মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশ, সেনা কল্যাণ সংস্থার ব্যবস্থাপনায় সেনা সদস্যদের মাধ্যমে ঈদের আগেই তা পৌঁছে দেবে। 
উল্লেখ্য, করোনাকালীন এই বিরূপ অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে গৃহবন্দী মানুষের জরুরী লেনদেকে সচল রাখতে নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছে বিকাশ। এসময়, গ্রাহকের জরুরী লেনদেনে ছাড়সহ দুস্থদের কাছে প্রণোদনা ও অর্থ সাহায্য প্রেরণে বড় অংকের ভর্তূকি দিয়ে বিকাশ সরকারের আপদকালীন সুরক্ষা কর্মসূচীতে প্রত্যক্ষভাবে যুক্ত আছে। এর পাশাপাশি, সামাজিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে হতদরিদ্র পরিবারগুলোর জন্য খাদ্য সহায়তার মত বেশ কিছু উদ্যোগও নিয়েছে বিকাশ। 
ব্র্যাক ব্যাংক, যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক মানি ইন মোশন, বিশ্ব ব্যাংক গ্রুপের অর্ন্তগত ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স কর্পোরেশন, বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন এবং অ্যান্ট ফিনান্সিয়াল এর যৌথ মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান বিকাশ, ২০১১ সাল থেকে বাংলাদেশ ব্যাংক নিয়ন্ত্রিত পেমেন্ট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিভিন্ন ধরনের ডিজিটাল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস দিয়ে আসছে।