নির্দিষ্ট অনলাইন শপ থেকে কেনাকাটার বিকাশ পেমেন্টে ইনস্ট্যান্ট ক্যাশব্যাক!

খেলাপাগল দেশে পেমেন্ট হোক বিকাশ-এ! টি২০ বিশ্বকাপ উপলক্ষে নির্দিষ্ট অনলাইন শপ থেকে কেনাকাটা করে পেমেন্ট বিকাশ করলেই পাচ্ছেন ১৫% পর্যন্ত ইনস্ট্যান্ট ক্যাশব্যাক! তাই কেনাকাটা শুরু করুন এখনই! 

অফারের মেয়াদ:

২৬ অক্টোবর থেকে ২৫ নভেম্বর, ২০২২ পর্যন্ত। 

অফারের বিস্তারিত:

• নির্দিষ্ট অনলাইন শপে কেনাকাটা করে পেমেন্ট বিকাশ করলেই পাচ্ছেন ১৫% পর্যন্ত ইনস্ট্যান্ট ক্যাশব্যাক।

• অফার চলাকালীন একজন গ্রাহক প্রতি লেনদেনে সর্বোচ্চ ১৫০ টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক উপভোগ করতে পারবেন।

• ক্যাম্পেইন চলাকালীন গ্রাহক সর্বোচ্চ ৩০০ টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক পাবেন।

• নিম্নলিখিত মার্চেন্টদের ক্ষেত্রে অফারগুলো উপভোগ করা যাবে:

 

• নিম্নলিখিত মার্চেন্টদের ক্ষেত্রে অফারগুলো উপভোগ করা যাবে:

 

মার্চেন্টের নাম

ক্যাশব্যাক অ্যামাউন্ট

ক্যাম্পেইন চলাকালীন সর্বোচ্চ ক্যাশব্যাক লিমিট 

প্রতি লেনদেনে ক্যাশব্যাক লিমিট 

অফারের মেয়াদ

ডিয়ার ফ্রেন্ডস 

৫%

কোনো লিমিট নেই

কোনো লিমিট নেই

২৫ অক্টোবর থেকে ২৫ নভেম্বর, ২০২২ পর্যন্ত

রাগেড মেনজ

১৫%

৩০০

১৫০

২৫ অক্টোবর থেকে ২৫ নভেম্বর, ২০২২ পর্যন্ত

শপ লাভার

১০%

২০০

কোনো লিমিট নেই

২ থেকে ৩০ নভেম্বর, ২০২২ পর্যন্ত

এয়ারব্রিংগার

১০%

৩০০

২০০

২৫ অক্টোবর থেকে ১৮ নভেম্বর, ২০২২ পর্যন্ত

আয়শামার্ট

১০%

৩০০

১৫০

২৫ অক্টোবর থেকে ১৮ নভেম্বর, ২০২২ পর্যন্ত

 

শর্তাবলি

• সচল একাউন্ট স্ট্যাটাস এবং পর্যাপ্ত ব্যালেন্স থাকা সাপেক্ষে যেকোনো বিকাশ গ্রাহক নিজ একাউন্ট থেকে পেমেন্ট করে অফারটি উপভোগ করতে পারবেন।

• ইনকামিং লেনদেন ও একাউন্ট স্ট্যাটাস সচল থাকা এবং সফলভাবে লেনদেন সম্পন্ন হওয়া সাপেক্ষে যেকোনো গ্রাহক ক্যাশব্যাক অফারের জন্য বিবেচিত হবেন। গ্রাহকের একাউন্ট স্ট্যাটাস সংক্রান্ত ইস্যুর কারণে ক্যাশব্যাক বিতরণ ব্যর্থ হলে গ্রাহক এই অফারের জন্য বিবেচিত হবেন না।

• গ্রাহকের একাউন্ট স্ট্যাটাসের ইস্যুজনিত কারণ ছাড়া যদি অন্য কোনো অজানা/অপ্রত্যাশিত কারণে ক্যাশব্যাক বিতরণ ব্যর্থ হয়, সেক্ষেত্রে ক্যাম্পেইন শেষ হওয়ার পর বিকাশ ২ মাসের মধ্যে ৩বার ক্যাশব্যাক বিতরণের চেষ্টা করবে। সকল উপায়ই যদি ব্যর্থ হয়, তাহলে আর কোনো চেষ্টা করা হবে না এবং গ্রাহক ক্যাশব্যাক অফারের জন্য আর অন্তর্ভুক্ত বিবেচিত হবেন না।

• ক্যাশব্যাক পেতে অফার চলাকালীন বিকাশ একাউন্ট থেকে নির্দিষ্ট মার্চেন্ট একাউন্টে সফল লেনদেন সম্পন্ন করতে হবে।

• চেক আউট পেমেন্টের (পেমেন্ট গেটওয়ে) মাধ্যমে পেমেন্ট করার ক্ষেত্রে আংশিক বা সম্পূর্ণ পেমেন্ট রিফান্ড নেওয়া গ্রাহকের ক্যাশব্যাক ফেরত নেওয়া হবে।

• বিকাশ কোনো পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই যেকোনো উপায়ে ক্যাম্পেইনের নিয়ম ও শর্তাবলি, মার্চেন্ট/আউটলেটের অংশগ্রহণ পরিবর্তন/সংশোধন বা যেকোনো সময় সম্পূর্ণ ক্যাম্পেইন বাতিল করার অধিকার সংরক্ষণ করে।

• কোনো নির্দিষ্ট লেনদেন এবং/অথবা গ্রাহকের লেনদেন কার্যক্রম যদি এমন কোনো যুক্তিসংগত সংশয় তৈরি করে যে, গ্রাহক ক্যাশব্যাক সুবিধার অপব্যবহার করেছেন, সেক্ষেত্রে বিকাশ গ্রাহকের ক্যাশব্যাক সুবিধা বাতিলের অধিকার সংরক্ষণ করে।

• যদি মার্চেন্ট কোনো পণ্যের প্রাপ্যতা ও ডেলিভারি নিশ্চিত করতে না পারে, সেক্ষেত্রে বিকাশ তার দায়ভার নেবে না, বিকাশ কেবল গ্রাহকের কাছে পেমেন্ট সেবা সরবরাহ করে। মার্চেন্ট গ্রাহককে কোনো পণ্য সঠিকভাবে ডেলিভারি করতে না পারার কারণে যদি মূল্য ফেরত দেয় তাহলে বিকাশ ঐ নির্দিষ্ট লেনদেনের জন্য গ্রাহকের ক্যাশব্যাক লিমিট পুনর্বহাল করতে বাধ্য নয়। গ্রাহক ক্যাশব্যাক অফারটি গ্রহণ করেছেন বলে ধরে নেওয়া হবে।

• যদি কোনো গ্রাহক ভুল পেমেন্ট করে ফেলেন, সেক্ষেত্রে ক্যাম্পেইন শেষে গ্রাহকের দাবি ও সত্যতা যাচাই করে বিষয়টি পর্যালোচনা করবে বিকাশ। 

• অজানা যেকোনো কারণে অফার পেতে বিলম্ব হতে পারে। সেক্ষেত্রে, গ্রাহক 16247-এ ডায়াল করে অথবা বিকাশ সেন্টার, বিকাশ কেয়ার, ফেসবুক ফ্যান পেইজ, ওয়েব চ্যাট (লাইভ চ্যাট সার্ভিস)-এর পাশাপাশি support@bkash.com-এই ঠিকানায় ইমেইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করে এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারেন।