কামরুলের গল্প 

ছোট থেকেই নিজের পায়ে দাঁড়ানোর জন্য কাজ করে গেসি। ইলেকট্রিকের কাজটা সবচেয়ে ভালো পারতাম। তাই বিদ্যুতের লাইনে কাজ শুরু করলাম। লাইনে কাম আসলেই দিন-রাত নাই ছুটে যাইতাম। একদিন খবর আসলো এক জায়গায় লাইন পইড়া গেছে। ঠিক করতে পোলে উঠলাম।

ছোট্ট একটা ভুলের জন্য জীবনটা বদলাইয়া গেলো। ক্যামনে চলুম, পরিবার- বাচ্চারে কি খাওয়ামু – বুইঝা উঠতে পারতেসিলাম না। কিন্তু বিশ্বাস ছিল চেষ্টা করলে, আল্লাহ আমারে আটকাবে না। পায়ের উপর ভরসা কইরা বাড়ির সামনে একটা দোকান দিলাম। টুক-টাক বেচা-কিনা শুরু হইলো। কিন্তু খেয়াল করলাম, মানুষ বেশির ভাগ সময় দোকানে না আইসা বাজারে চইলা যায়।   তখন বুদ্ধি খাটাইলাম, মানুষের তো বিকাশ লাগে তাইলে আমার দোকানেও বিকাশ আনবো। এভাবে সবাই এখন আমার দোকানে আসে, বিকাশ করে, সেইসাথে সদাইপাতিও কিনে নিয়ে যায়। এতো কষ্টের জীবনে আমার স্ত্রী সবসময় আমার পাশে থাকে, সাহায্য করে। 

আমার স্বপ্ন আমার এই দোকানটা একদিন অনেক বড় সুপারশপ হবে।